মঙ্গলবার   ২২ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৬ ১৪২৬   ২২ সফর ১৪৪১

তেল সেক্টরকে অশান্ত করার অভিযোগে মিজানুর রহমানকে অব্যাহতি

প্রকাশিত: ২৫ জুন ২০১৯  

সিদ্ধিরগঞ্জ (যুগের চিন্তা ২৪) : তেল সেক্টরকে অশান্ত করে সরকারকে বেকায়দায় ফেলার চক্রান্তের অভিযোগে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম ডিলার্স, ডিস্ট্রিবিউটরস, এজেন্ট এন্ড পেট্রোল পাম্প ওনার্স এসোসিয়েশনের কেন্দ্রীয় মহাসচিব মিজানুর রহমান (রতন) কে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।


রবিবার (২৩ জুন) এসোসিয়েশনের সভাপতি মো.নাজমুল হক স্বাক্ষরিত একটি চিঠিতে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশনের চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী, সচিব, পদ্মা, মেঘনা ও যমুনা ওয়েল কোম্পানী লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও বিভাগীয় এবং জেলা কর্মকর্তা, এসোসিয়েশনের সকল বিভাগীয় ও জেলা সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক এবং বাংলাদেশ ট্যাংকলরী শ্রমিক ফেডারেশন ও নারায়ণগঞ্জের গোদনাইল মেঘনা ডিপো ইউনিটসহ সকল ইউনিটের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদকদেরকে তার সাথে সাংগঠনিক যেকোন কর্মকা- থেকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানানো হয়েছে।

 

এসোসিয়েশনটির চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম ডিলার্স, ডিষ্ট্রিবিউটরস, এজেন্ট এন্ড পেট্রোল পাম্প ওনার্স এসোসিয়েশনে মিজানুর রহমান (রতন) সংগঠনের কেন্দ্রীয় মহাসচিব হিসেবে দায়িত্বরত ছিলেন। গত ১৬ জুন রাজধানী ঢাকার পূর্বাণী হোটেলের জলসা ঘরে এসোসিয়েশনের সাধারণ সভায় মিজানুর রহমান রতনের বিরুদ্ধে সংগঠনের শৃঙ্খলা বিরোধী ও অনৈতিক কর্মকা-ে জড়িয়ে পড়া এবং ১৫ বছর পূর্বে এসোসিয়েশন থেকে বহিস্কৃত তেল সেক্টরের কলঙ্ক হিসাবে চিহ্নিত খুলনা অঞ্চলের কতিপয় ব্যক্তির যোগসাজসে দেশের জ্বালানী তেল সেক্টরের শান্ত পরিবেশকে (দাবী আদায়ের নামে ধর্মঘট ডাকার মাধ্যমে) অশান্ত করে সরকারকে বেকায়দায় ফেলার জন্য সাধারণ মালিকদেরকে উস্কানী প্রদানের অভিযোগ উত্থাপিত হয়। এ সময় এসোসিয়েশনের তিন চতুর্থাংশের অধিক সদস্যদের সমর্থন ও সম্মতিতে তাকে এসাসিয়েশনের মহাসচিব পদ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়।

 


চিঠিতে আরও উল্লেখ করা হয়, আশা করা হয়েছিল যে উক্ত মিজানুর রহমান রতন ভবিষ্যতে কোথাও নিজেকে অত্র এসোসিয়েশনের কেন্দ্রীয় মহাসচিব হিসেবে পরিচয় দেয়া এবং তার নাম বা স্বাক্ষরের সাথে অত্র এসোসিয়েশনের কোন পদ পদবী উল্লেখ করা থেকে বিরত থাকবেন। কিন্তু লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে, মিজানুর রহমান রতন এসোসিয়েশনের মহাসচিব পদে না থাকা সত্ত্বেও এখনও সম্পূর্ণ অনাকাংখিত ও অবৈধভাবে বিভিন্ন স্থানে ও দপ্তরে নিজেকে এসোসিয়েশনের মহাসচিব হিসাবে পরিচয় দেয়া অব্যাহত রেখেছেন। এমনকি তাকে অত্র এসোসিয়েশনের মহাসচিব পদ থেকে অব্যাহতি দেয়ার পরও এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দের সাথে সরকারি দপ্তরে আলোচনা সভায় উক্ত মিজানুর রহমান রতন সাবেক মহাসচিব ও শুধুমাত্র পর্যবেক্ষক হিসাবে উপস্থিত হয়ে উপস্থিতি রেজিস্টারে নিজ স্বাক্ষরের সাথে মহাসচিব পদবী উল্লেখ করেছেন। যাহা সম্পূর্ণ অবৈধ এবং অনিয়মতান্ত্রিক।


এমতাবস্থায় সংশ্লিষ্ট সকলের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে, মিজানুর রহমান রতনকে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম ডিলার্স, ডিষ্ট্রিবিউটরস, এজেন্ট এন্ড পেট্রোল পাম্প ওনার্স এসোসিয়েশনের কেন্দ্রীয় মহাসচিব পদ থেকে অব্যাহতি প্রদান করা হয়েছে। তিনি বর্তমানে অত্র এসোসিয়েশনের কেন্দ্রীয় মহাসচিব পদে দায়িত্বরত নাই। কাজেই সকল সরকারি-বেসরকারি দপ্তর ও বিভাগ এবং সংশ্লিষ্ট  সকল মহল ও ব্যক্তি বিশেষকে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম ডিলার্স, ডিষ্ট্রিবিউটরস, এজেন্ট এন্ড পেট্রোল পাম্প ওনার্স এসোসিয়েশনের মহাসচিব বা প্রতিনিধি হিসাবে মিজানুর রহমান রতনের সাথে কোন প্রকার যোগাযোগ, আলাপ-আলোচনা, লেনদেন এবং পত্রাদি আদান-প্রদান না করার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করা হল।    

এই বিভাগের আরো খবর