মঙ্গলবার   ০৭ এপ্রিল ২০২০   চৈত্র ২৩ ১৪২৬   ১৩ শা'বান ১৪৪১

তরুণ কবি মিলন মাহমুদের গুচ্ছ কবিতা

প্রকাশিত: ২ মার্চ ২০২০  

বৃত্ত
কে যেনো এসে বিভীষিকাময় শব্দ গুলো
নিয়ে গেলো গোপনে, চুপিসারে, 

তারপর থেকে জানতে পারলাম মানুষ
নেহাত একটা বৃত্তের দাস ছাড়া কিছু না।

 

দংশন
এই সব বিষের পেয়ালায় 
আঙুরের দানা ডুবে থাকে,

 

মখমলের নরম বিছানায়
দ্বিখণ্ডিত জিহ্বার স্বাদ তিক্ত
হলে, নির্ঘুম থাকে কেবল নীল দংশন,

 

ভালোবেসে খাদের কিনারায়
একদলা গুঁড়ের লালচে আঠায়,

কয়েকটা পিঁপড়ে আমরণ অনশন করে।

 

শিরোনামহীন
কোলাহল আড়াল হলেই মানুষ নিঃসঙ্গ
নিঃসঙ্গ জারুল গাছের মতন
নিঃসঙ্গ ধান শালিকের মতন।

 

নিঃসঙ্গ উলঙ্গ নদীতে....

ভেসে চলা স্রোতরেখায় 
ডুবে চলা শুশুকের জবানীতে ,

পাল খোয়ানো পথিকের পারদ আঙুলের
জোরে, কোনোমতে টিকে থাকা নিরন্তর
ঢেউ।

 

ফসল
মানুষের অঙ্গনে দ্রোহের শলাপরামর্শ শেষে
এক ভিক্ষুক এসে জানতে চাইলো
কয় কাল অতিক্রমে অথবা-

কোন পঞ্জিকার জলবায়ু বদলে গিয়ে
উর্বর হবে ধানিজমি, উজ্জ্বল হবে মাথার খুলি।

 

কেউ একজন বলে দিলো
রিলিফের ফসল ঘরে তুলতে নেই।

 

মাকড়সা
পুকুর হতে নেমে আসা জল মাকড়সা
আমার বুকে অবিরাম বাজে থৈ থৈ শব্দে, 

লিপিবদ্ধ করে মানবীর কথা কিম্বা
গোপন ঠোঁটে লাল মলাটে জপতে থাকা পদ্মে,

 

আমি ক্ষয়ে গেছি যেনো অন্য সারাংশে
আমি জন্মেছি যেনো আগুনমুখা অবেলায়,

এক জীবনে যাপন ভালোবেসে.....
ভিন্ন চোখের ইশারায়!