মঙ্গলবার   ২২ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৬ ১৪২৬   ২২ সফর ১৪৪১

টুইন টাওয়ার হামলায় আক্রান্ত নারীর স্বামীসহ ইসলাম গ্রহণ

প্রকাশিত: ২৯ মে ২০১৯  

ডেস্ক রিপোর্ট (যুগের চিন্তা ২৪) : আমেরিকার টুইন টাওয়ারে ৯/১১-এর হামলার সময় বিমানে যুক্তরাষ্ট্রের মিয়ামিতে সফরে বের হয়েছিলেন এক নারী। হামলার পর বিমানটি নিকারাগুয়ায় ফেরত আসে। আর সে যাত্রা তিনি বেঁচে যান এ হামলা থেকে।


সেই নারীর নাম হলো-কর্ডস্মাথ ডানি। ৩৯ বয়সী কর্ডস্মাথ উত্তর আমেরিকার নিরাকাগুয়ার অধিবাসী। সম্প্রতি তিনি তার স্বামীকে নিয়ে সংযুক্ত আরব আমিরাতের ইসলামিক কালচারাল সেন্টারে এসে পবিত্র ধর্ম ইসলাম গ্রহণ করেছেন।


ইসলাম গ্রহণ করে নিজ নাম রেখেছেন ‘আলিয়া মেন্দোজার’ আর স্বামীর নাম রেখেছেন ‘আব্দুল্লাহ মেন্দোজার’। খবর দ্য ন্যাশনাল। ইসলাম গ্রহণকারী এ নারীর রয়েছে নিজস্ব কোম্পানি। কোম্পানির নাম মেন্দোজার। এ নামেই তারা প্রসিদ্ধ।

 

ইসলাম গ্রহণের পর যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক আলিয়া মেন্দোজার বলেন, ‘ইসলাম গ্রহণ করার পর আমরা অনেক সম্মানিত। ধর্মান্তরিত ব্যক্তি হিসেবে আমাদের ডাকা হয় না।’ আলিয়া মেন্দোজার ধর্ম গ্রহণের পর বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ (স.) একটি কথার পুরোপুরি মিল খুঁজে পান। বিশ্বনবী (স.) বলেছেন, ‘প্রত্যেক ব্যক্তিই মসুলিম হিসেবে জন্ম গ্রহণ করেছিলো। পরে বাবা-মায়ের কারণে কেউ ইয়াহুদি কিংবা খ্রিস্টান হয়েছে।’

 

আলিয়া মেন্দোজার তাঁর প্রথম কালেমা পাঠের স্মৃতিচারণ করে বলেন, ‘আমার মনে আছে সেইসব ‘হাঁসিমুখ’-এর কথা। যারা আমার দিকে ইতিবাচক দৃষ্টিতে তাকিয়েছিল। কালেমা পাঠের পর আমি নিজেকে সব মুসলিমের অংশ হিসেবে মনে করতে থাকি। তিনি আরও বলেন, ‘ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করতে আমার মাত্র তিন মিনিট সময় লেগেছিল। আর এ তিন মিনিট সময় চিরদিনের জন্য আমার জীবনে পরিবর্তন এনে দিয়েছে।’

 

দুবাই ইসলামিক কালচারাল সেন্টারে প্রতি মাসেই অনেক অমুসলিম ইসলাম গ্রহণ করছেন। তারা আধার থেকে পাড়ি জমাচ্ছেন আলোতে। মিথ্যা থেকে সথ্যের পথে। ইসলামিক কালচারাল সেন্টারে এ কার্যক্রমে অনেক মানুষই দেখছেন ইসলামের সুমহান আলোর পথ।

এই বিভাগের আরো খবর