বুধবার   ১৩ নভেম্বর ২০১৯   কার্তিক ২৮ ১৪২৬   ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

চাষাড়া পুলিশ ফাঁড়ির কিছুটা জমি ছাড়লে যানজট নিরসন হবে

প্রকাশিত: ১৭ অক্টোবর ২০১৯  

স্টাফ রিপোর্টার ( যুগের চিন্তা ২৪) : চাষাড়া  পুলিশ ফাঁড়ি  ভেঙ্গে ফেলা হয়েছে। ফাঁড়ির নতুন ভবন নির্মাণের পূর্বে উত্তর দিক থেকে কিছুটা জমি ছেড়ে দিলে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ পুরনো সড়কটি আরো চওড়া হবে। 

এতেকরে চাষাড়ার এই পয়েন্টে (পুলিশ ফাঁড়ি ও ডাকবাংলো) যানজট কমবে। চাষাড়া পুলিশ ফাঁড়ির জমি ছেড়ে দেয়ার জন্য অনুরোধ জানিয়ে পুলিশ সুপারের কাছে স্মারকলিপি দিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ নাগরিক কমিটির নেতৃবৃন্দ। 

নারায়ণগঞ্জ নাগরিক কমিটির সভাপতি এড. এবি সিদ্দিক ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান স্বাক্ষরিত স্মারকলিপিতে বলা হয়েছে, নারায়ণগঞ্জ মহানগরে  যানজট সমস্যা দিন দিন তীব্র থেকে তীব্রতর হচ্ছে। ২ থেকে ৫ মিনিটের পথ অতিক্রমে ঘন্টা খানেক সময় পার হচ্ছে। ফলে ভুক্তভোগী নগরবাসী ক্লান্ত নিষ্পেষিত।

প্রকৃতপক্ষে এই ক্লান্তি শুধু মাত্র ভূক্তভোগীরাই ভোগ  করেনা পুলিশকেও ভোগাচ্ছে। এই ক্লান্তি থেকে কিছুটা স্বস্তি দেওয়ার জন্য ট্রাফিক বিভাগ তাদের সামর্থ্যমত সেবা দেওয়ার চেষ্টা করেও তেমন কোন পরির্বতন  আনতে পারছেনা। সকাল ৯ টা থেকে রাত ১০ টা পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু সড়কসহ পাশ্ববর্তী সড়ক গুলোর  একই অবস্থা। 

এই দূর্ভোগ থেকে স্বস্তি পাওয়ার জন্য ২০০৬ সাল থেকে আন্দোলন করে আসছে নারায়ণগঞ্জ নাগরিক কমিটি। স্বরাষ্ট্র ও স্থানীয় মন্ত্রনালয়সহ স্থানীয় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট স্মারকলিপি প্রদান, মানববন্ধন, মতবিনিময় সভা করেছি, যা জাতীয় ও স্থানীয় মিডিয়াতে প্রচারিত হয়েছে। এই যানজটের কারণগুলো উল্লেখ করেছি যার উৎপত্তির স্থান চাষাড়ায় অবস্থিত পুলিশ ফাঁড়ি  ও জেলা পরিষদের ডাক বাংলোর অবস্থান। 

এই দুটি স্থাপনা পূর্ব দিক থেকে রাস্তার ২৫ ফুট এবং পশ্চিম দিক দিয়ে আসা রাস্তার ৪০ ফুট ভিতরে । ফতুল্লায় শিল্পনগর স্থাপন হওয়ার পর থেকে পরিবহনের চাপ দিন দিন বেড়েই চলছে। কিন্তু রাস্তার প্রসারতা পূর্বের মতই রয়ে গেছে। 

ফলে অধিকাংশ সময়ে এই রাস্তায় যানজট থাকে যার প্রভাব পড়ে পুরো বঙ্গবন্ধু সড়ক সলিমুল্লাহ সড়ক, লিংক রোড নারায়ণগঞ্জ-ফতুল্লা-ঢাকা রোডে। নাগরিক কমিটির দাবী, এই স্থাপনাগুলো দুই দিকে থেকে আসা রাস্তা বরাবর  আংশিক সরিয়ে দিলে নারায়ণগঞ্জের যানজটের দূর্ভোগ থেকে নগরবাসী কিছুটা  স্বস্তি পাওয়াসহ ট্রাফিক বিভাগের নিরবিচ্ছিন্ন পরিশ্রমের লাঘব হবে। 

সরকার রাজধানীসহ সারাদেশে যানজটের প্রকোপ থেকে জনগণকে রেহাই দেওয়ার জন্য বড় বড় স্থাপনা উচ্ছেদ করছে। সেখানে এই পুলিশ ফাঁড়ির সামান্য জমি ছেড়ে দিলে সমস্যা সমাধানের পথ সুগম হয়। ফাড়িটি বর্তমানে ভাঙ্গা হয়েছে। 

নতুন ভবন নির্মানের পূর্বে বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে উত্তর দিক  দিয়ে বাড়তি জায়গা ছেড়ে নির্মান কাজ করলে সরকারী অর্থের অপচয় রোধ করা সম্ভব হবে। এ ব্যাপারে জেলা পরিষদ বরাবর অনুরূপ দাবীনামা  দেয়া হয়েছে ।

নাগরিক কমিটির নেতৃবৃন্দ পুলিশ সুপারকে আরো বলেন, ইতোমধ্যে আপনার কর্তব্যপরায়নতা ও দৃঢ়তা প্রশংসিত হয়েছে এবং জনগন এর ফলে ভোগ করছে। আপনার গৃহীত পদক্ষেপে আমরা আশাবাদী হয়ে  প্রত্যাশা রাখতে চাই চাসাড়ায়  যানজটের  এই অন্যতম মূল কারনটি সরেজমিনে পরিদর্শন করে একটি যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহন করবেন। 
 

এই বিভাগের আরো খবর