শনিবার   ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৯ ১৪২৬   ১৬ রবিউস সানি ১৪৪১

ক্ষরণ 

প্রকাশিত: ১ ডিসেম্বর ২০১৯  

আজ নিজেকে হারানো এক মিথ মনে হয়
কৃষ্ণপক্ষে ক্ষয়িষ্ণু এক চাঁদের আলোয়।
চাঁদ সারারাত আমার প্রতিক স্বপ্নহারা
সুখের স্বপ্ন ভাঙলো না হয় তোমার ভালোয়।

 

শরৎ আকাশ ভাঙ্গা মেঘের খেলায় মাতে
জানে নাতো হৃদয় ভাঙ্গার নিগুঢ় ব্যাথা।
ভাঙ্গা নদী ভাঙ্গা মেঘের দোশর হয়ে
মেনে নিলাম নীল নিয়তির বিরুদ্ধতা। 

 

আমার যতো অভিযোগ আর মান অভিমান
থাকনা পরে আমার বুকে লুকায়িত।
তুমি না হয় তোমার সুখে বিভোর হয়ে
সুখেই থাকো শাঁখের করাত তোমার মতো।

 

খুব নিশিথে হঠাৎ যদি ঘুমের ঘোরে
স্বপ্নে আসি সেই পুরাতন স্মৃতির মেলায়।
ঝাপটা জলে ধুয়ে নিও অসুখ ভেবে
যেমন করে গেছো চলে শখের হেলায়।

 

খুব খেয়ালী এক বিকেলে একলা ছাঁদে
হঠাৎ যদি মনে আসে প্রথম দেখা।
তাকিয়ে ঐ আকাশ পানে দেখতে পাবে
চিলের বেশে উড়ছি বেদম একলা একা।

 

হঠাৎ করে ছিড়ে গেলে পায়ের নূপুর
খুলে গেলে স্বাধের বাঁধাই চুলের খোপা।
মন ভেঙ্গোনা, নথের কসম বলবো মনে
মনহরিণী, তুমি আমার শতরূপা।

 

আমি না হয় অগোছালো ছন্নছাড়া
খুব বুঝিনা এই পৃথিবীর অংকগুলো।
তুমিও তো বেশ অভাগা এই না জেনে
এই হৃদয়ের সবটুকু প্রেম তোমার ছিলো।

 

জীবন জুড়ে হারের খেলা হেরেই যাবো
তবুও জানি শ্যাম যদি হই আসবেই রাই।
সত্য প্রেমের শপথ বুকে চেপে রেখে
স্বপ্ন জমাই শুক্লপক্ষে উড়াবো তাই।


মিথুন খান