বুধবার   ২৭ মে ২০২০   জ্যৈষ্ঠ ১২ ১৪২৭   ০৪ শাওয়াল ১৪৪১

করোনা মোকাবিলায় ফ্রন্টলাইনার চিকিৎসক হিসেবে যোগ দিলেন ডা. আকাশ

স্টাফ রিপোর্টার

প্রকাশিত: ১৩ মে ২০২০  

করোনা মোকাবিলায় সারাদেশে যোগ দিলেন দুই হাজার নতুন চিকিৎসক। এর আগে শনিবার তাদের পদায়ন দেয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। করোনাযুদ্ধের ফ্রন্টলাইনার হিসেবে নারায়ণগঞ্জ ৩০০ শয্যা হাসপাতালে যোগদান করেছেন নারায়ণগঞ্জের সন্তান ডা. সায়েদুর রহমান আকাশ। ৩৯তম বিশেষ বিসিএসের লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। এর আগে গত ৪ মে দুই হাজার চিকিৎসক নিয়োগের প্রজ্ঞাপন জারি করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। ওই দিন এই চিকিৎসকদের ১২ মে মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুসারে কর্মস্থলে যোগদান করতে বলা হয়েছিল।

 

ডা. সায়েদুর রহমান আকাশ নারায়ণগঞ্জ শহরের পশ্চিম দেওভোগ নিবাসী অগ্রণী ব্যাংক, নারায়ণগঞ্জ শাখার সাবেক এজিএম (অবসরপ্রাপ্ত) মো. মাহবুবুর রহমান ও সালমা আক্তার দম্পতির বড় সন্তান। তিনি আকাশ আদর্শ স্কুল থেকে ২০০৫ সালে এসএসসি এবং নারায়নগঞ্জ কলেজ থেকে ২০০৭ সালে এইচএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। পরে ২০০৭-০৮ সেশনে ময়মনসিংহ কমিউনিটি বেজড মেডিকেল কলেজে ১৪ তম ব্যাচে ভর্তি হন। 

 

২০১৪ সালে ইন্টার্নি শেষ করে চিকিৎসা সেবায় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের স্থানীয় সরকার বিভাগের স্বাস্থ্য প্রকল্প ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন অফিসে ২০১৫ সালে নিজের কর্মজীবন শুরু করেন। পরে ২০১৬-১৭ সালে ময়মনসিংহ মেডিকেলের শিশু বিভাগে উচ্চতর প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন। ২০২০ সালে শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের প্যাথলজি বিভাগে উচ্চতর ডিগ্রি এম.ডি কোর্স শুরু করেন তিনি।

 

এদিকে, বৈশ্বিক মহামারি করোনা পরিস্থিতিতে ফ্রন্টলাইনার যোদ্ধা হিসেবে যোগ দেয়াকে চিকিৎসক হিসেবে নেয়া শপথ বাস্তবায়নের সুযোগ বলে মনে করছেন ডা. সায়েদুর রহমান আকাশ। এ সাফল্যের পেছনে সৃষ্টিকর্তার পর বাবা-মায়ের অক্লান্ত পরিশ্রম, ত্যাগ ও নিজের স্বদিচ্ছাই ছিলো সবচেয়ে বড় প্রভাবক বলেও জানান তিনি। 

এই বিভাগের আরো খবর