শুক্রবার   ১৮ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৩ ১৪২৬   ১৮ সফর ১৪৪১

ঈদে গ্রামের বাড়িতে যাব, মায়ের সাথে ঈদ কাটাবো : আব্দুল হামিদ মিয়া

প্রকাশিত: ১৪ জুন ২০১৮   আপডেট: ১৪ জুন ২০১৮

স্টাফ রিপোর্টার (যুগের চিন্তা ২৪): কখনওই পরিবার ছাড়া ঈদ উদযাপন করা হয় নি। তবে খুব ভালো ভাবে ঈদ উদযাপন হয়েছে তাও না। কিন্তু ছোটবেলার সময়টা ভালো ছিল। যুগের চিন্তা ২৪’র সাথে ঈদ আড্ডায় ঈদ উদযাপন নিয়ে ছোটবেলার অনুভূতি প্রকাশ করছিলেন জেলা অতিরিক্তি জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আব্দুল হামিদ মিয়া।

 

ঈদে ছোটবেলার স্মৃতিচারণ করে আব্দুল হামিদ মিয়া জানান, ছোটবেলায় নতুন পোশাকের একটা ব্যাপার তো ছিলই। কিন্তু দৌড়াদৌড়ির ব্যাপারটা ছিল বেশি। কখন নতুন জামা পড়বো। বড়দের সালাম করবো। একটা অন্যরকম ব্যাপার ছিলো। ছোটবেলায় একবার ধীরে ধীরে বড় হওয়ার সাথে সাথে আনন্দটা ক্ষীণ হয়ে গেছে। এখনতো নানা চিন্তা থাকে কাজের চাপ থাকে। তবে এবার গ্রামের বাড়িতে যাব মায়ের সাথে ঈদ কাটাবো। ঈদের কেনাকাটা নিয়ে আব্দুল হামিদ মিয়া জানান, ঈদে তেমন কিছু কেনা হয় না।

 

অনেকগুলো উপহার পেয়েছি এটাই অনেক। তবে ছোটবেলায় ঈদের কেনাকাটা হত। ছোটবেলায় প্রথম ঈদ সালামি পাওয়ার অনুভূতি নিয়ে জানতে চাইলে আব্দুল হামিদ মিয়া বলেন, ছোটবেলার অনেক স্মৃতিই এখন আর স্পষ্ট নয়। এই স্মৃতিগুলো তেমনই । তবে মনে আছে বেশিরভাগ সময়ই আব্বু আম্মু সকাল বেলায় নতুন পোশাক পরার পর ঈদ সালামি দিত। ঈদে বাসায় পছন্দের খাবার নিয়ে আব্দুল হামিদ মিয়া জানান, ঈদের দিন সেমাইয়ের আইটেমের পাশাপাশি গরুর মাংস ভুনাটা আমার খুব পছন্দের।

 

তবে মায়ের হাতের ভর্তাটাও আমাদের পছন্দের খাবারের মত মধ্যে একটি। বিশ্বকাপ ফুটবলের পছন্দের দল নিয়ে আব্দুল হামিদ মিয়ে জানান, ছোটবেলায় আর্জেনন্টিনা সমর্থন করতাম। তবে এখন নানা ব্যস্ততায় খেলাধুলা দেখা হয় না। তাই তেমনভাবে দল সমর্থন করি না। যুগের চিন্তা ২৪’র সাথে ঈদ আড্ডা শেষে আব্দুল হামিদ মিয়া পরিবার, আত্মীয় স্বজন ও সহকর্মীদের ঈদের শুভেচ্ছা জানান।

এই বিভাগের আরো খবর