রোববার   ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৪ ১৪২৬   ১০ রবিউস সানি ১৪৪১

ইকরা কর্মাস এন্ড বিএম ইনস্টিটিউটে কোচিং বাণিজ্যের অভিযোগ

প্রকাশিত: ২১ নভেম্বর ২০১৯  

স্টাফ রিপোর্টার (যুগের চিন্তা ২৪) : সিদ্ধিরগঞ্জে চিটাগাং রোড এলাকায় অবস্থিত ইকরা কর্মাস এন্ড বিএম ইনস্টিটিউটে কোচিংকে বাধ্যতামূলক করে টাকা আদায়সহ পরীক্ষার নামে অতিরিক্ত টাকা আদায়ের অভিযোগ উঠেছে।


এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার ( ২১ নভেম্বর) ইকরা কর্মাস এন্ড বিএম ইনস্টিটিউটের ভুক্তভোগী এক শিক্ষার্থী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ করেন।


অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, স্কুল কর্তৃপক্ষ শিক্ষার্থীদের বাধ্যতামূলকভাবে অধিক টাকা আদায় করছে।স্কুলটিতে কোচিংকে তারা বাধ্যতামূলক করে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে অনেক টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে।যদি কোন শিক্ষার্থী কোচিং না করে তাহলেও স্কুল কর্তৃপক্ষদেরকে বাধ্যতামূলকভাবে টাকা দিতে হয়। তা না হলে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে দিবে না বলে ভয়ভীতি দেখান এবং শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন প্রকার মানসিক অত্যাচারও করা হয়। এমনকি টাকা না দিতে পারলে স্কুল থেকে পবর কাে দেয়ারও হুমকি প্রদান করেন।


নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক  এক শিক্ষার্থী  জানান, তারা আমার কাছ থেকে বাধ্যতামূলকভাবে কোচিংয়ের জন্য ১ হাজার টাকা, শিক্ষা সফর ৮০০ টাকা, প্রবেশ পত্রের জন্য ৫০০ টাকা ও ব্যবহারিক  পরীক্ষার জন্য ১ হাজার টাকাসহ মোট ৩ হাজার ৩০০ টাকা আদায় করে। পরবর্তীতে আমাকে আনুসাঙ্গিক আরও টাকা দিতে বললে আমি অনিহা প্রকাশ করলে তারা আমার রেজিস্ট্রেশন কার্ডটি নিয়ে যায়।


অভিযোগ অস্বীকার করে ইকরা কমার্স অ্যান্ড বিএম ইনস্টিটিউটের সহকারি অধ্যক্ষ মহিউদ্দিন জানান, এখানে কোচিং বলতে কোনো শব্দ নেই। স্পেশাল ক্লাসের জন্য ১ হাজার টাকা নেওয়া হয়। তবে তিনমাস পরপর।


ব্যবহারিক পরীক্ষার জন্য নেয়া ১ হাজার টাকা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এটা সরকারি নিয়ম নেই। তবে, পরীক্ষার জন্য নয় খাতা বানানোর জন্য এই টাকাটা নিই। এডমিট কার্ডের জন্যও টাকা নেয়া হয় কিন্তু বিষয়টা ওরকম নয়। আপনি আমাদের অফিসে আসলে বিষয়টা বুঝাতে পারতাম।

এই বিভাগের আরো খবর