শনিবার   ১৬ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ১ ১৪২৬   ১৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

আরাফাত হত্যার দায়ে ৭ জনের যাবজ্জীবন, ২ খালাস (ভিডিও)

প্রকাশিত: ২৮ আগস্ট ২০১৯  

স্টাফ রিপোর্টার (যুগের চিন্তা ২৪ ) : ২০১০ সালে সিদ্ধিরগঞ্জে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ক্রিকেট খেলার কথা বলে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে আরাফাত (২২) কে হত্যার দায়ে ৭ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও প্রত্যেককে ৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ডের রায় দিয়েছেন আদালত। রায়ে ২ জন আসামিকে বেকুসর খালাস প্রদান করা হয়। আরাফাত সিদ্ধিরগঞ্জ আর্টি এলাকার মৃত আনোয়ার হোসেনের ছেলে।


বুধবার ( ২৮ আগস্ট) দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ দ্বিতীয় শেখ রাজিয়া সুলতানার আদালত এ রায় ঘোষণা করেন। এ সময় আদালতে ৩ জন আসামি উপস্থিত ছিল। মামলায় ২৫ সাক্ষির মধ্যে ১৪ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়। মামলা নং ৩১(২)১০।


সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা হলো- ফালাইন্নার ছেলে সজিব, মৃত-মোহন মিয়ার ছেলে রাসেল, হারুন অর রশিদের ছেলে  জয় আহমেদ ওরফে জাহিদুল ইসলাম।


এ মামলার সাজাপ্রাপ্ত অপর চার পলাতক আসামিরা হলো-রফিকুল্লা ওরফে রফিকের ছেলে ইসছব ওরফে ইউসুফ, মৃত আফজালের ছেলে রফিকুল্লা ওরফে রফিক, চান মিয়ার ছেলে দেলোয়ার ওরফে দেলু এবং আবু তালেবের ছেলে শামীম।


খালাশ প্রাপ্তরা হলো -মোসলেমের ছেল রাজু আহম্মেদ, ইব্রাহিমের ছেলে শফি ওরফে শফিকুল ইসলাম।


রাষ্ট্র পক্ষের আইনজীবী অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি ) এড. জাসমিন আহমেদ জানান, ২০১০ সালে সিদ্ধিরগঞ্জে ক্রিকেট খেলার কথা বলে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে আরাফাত (২২) কে আর এম অয়েল মিলের পরিত্যক্ত জায়গায় বেলেট দিয়ে পুঁচিয়ে হত্যা করে ডোবার মধ্যে ফেলে রাখে। পরেরদিন বিকেলে তার মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।


তিনি আরও জানান, এরপর আরাফাতের বাবা বাদী হয়ে ৯ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন । আজ এই মামলায় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ দ্বিতীয় শেখ রাজিয়া সুলতানার আদালত ৩ জন আসামির উপস্থিতিতে ২৫ সাক্ষির মধ্যে ১৪ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে ৭ জনের যাবজ্জীবন কারাদ- ও প্রত্যেককে ৫ হাজার টাকা অর্থদ-ের রায় দিয়েছেন এবং ২ জনকে বেকসুর খালাস দেন।
 

এই বিভাগের আরো খবর