রোববার   ১৮ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৩ ১৪২৬   ১৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

আমার মতো একজন, পেশায় ডাক্তার তার বক্তব্যে আমি দুঃখিত :শামীম ওসমান

প্রকাশিত: ৩০ মে ২০১৯  

স্টাফ রিপোর্টার (যুগের চিন্তা ২৪) : নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ শামীম ওসমান বলেছেন, নারায়ণগঞ্জের পত্রিকা ও অনলাইনে আমি দেখেছি আমার মতো হয়তো কেউ একজন এমন কিছু বক্তব্য দিয়েছেন যিনি নিজেও পেশায় ডাক্তার। তিনি এমন কিছু বক্তব্য দিয়েছেন যে কারণে স্বাচিপের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ হয়তোবা নিজেদের অবাক করেছে। আমি দুঃখিত নারায়ণগঞ্জের কেউ যদি কোন কিছু বলে থাকে আর উনি যদি পেশায় ডাক্তার হন তাহলে আমার কিছু বলার নাই। যদি বলে থাকেন নারায়ণগঞ্জের একজন বাসিন্দা হিসেবে আমি আপনাদের সকলের কাছে স্বাচিপের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের কাছে নারায়ণগঞ্জবাসীর পক্ষ থেকে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। ব্যক্তিবিশেষের কথায় আপনারা নারায়ণগঞ্জবাসীকে খারাপ দৃষ্টিকোণ থেকে দেখবেননা এটি প্রার্থনা করি। 

 

বৃহস্পতিবার (৩০ মে) বিকেলে নিউ সমবায় ভবনে গত ৩০ এপ্রিল ঘোষিত স্বাধীনতা চিকিৎসা পরিষদ (স্বাচিপ) নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার আয়োজিত ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথি বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। 

 

শামীম ওসমান বলেন, আশা করি আপনারা কারো ব্যক্তিগত বক্তব্যের কারণে নারায়ণগঞ্জবাসীকে ভুল বুঝবেননা। নারায়ণগঞ্জবাসী জানে কিভাবে মানুষকে সম্মান করতে হয়, নারায়ণগঞ্জবাসী জানে কিভাবে মানুষকে মূল্যায়ণ করতে হয়। 

 

শামীম ওসমান আরো বলেন, একটি কথা বলতে চাই স্বাচিপের কেন্দ্রীয় সভাপতিকে আমরা অনেক সম্মান করি। চিকিৎসাসেবার চেয়ে আর বড় কোন সেবা হতে পারেনা। আপনারা সেই শ্রেণি পেশার মানুষ। আমি স্বাচিপের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের কাছে নারায়ণগঞ্জের পক্ষ থেকে ক্ষমা চাচ্ছি। নারায়ণগঞ্জবাসী অভ্যাস আথিতিয়তার করা। স্বাচিপের সভাপতির কথা দ্বারা আমি পরিস্কার হলাম স্বাচিপের কমিটি করার ব্যাপারে আমাদের কোন এখতিয়ার নেই। যাদেরকে নেতৃত্ব দেয়ার এখতিয়ার তারাই কমিটি করবেন। স্বাচিপের সভাপতি বিস্মিত ও অবাক হয়েছে যখন অন্য কেউ স্বাচিপের ব্যানারেই অনুষ্ঠান করেছে। যারা করেছে তারা ছোট মানুষ এমন সবজায়গাতেই থাকে। স্বাচিপের নেতৃবৃন্দের কাছে অনুরোধ করবো, স্বাচিপ আপনারা করেছেন স্বাধীনতার পক্ষের যে চিকিৎসক আছেন তাদের ঐক্যবদ্ধ করেছেন। এর কারণ আপনারা নিজেদের স্বার্থে নয়, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে সোনার মানুষ তৈরি করতে করেছেন।   

 

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে স্বাচিপ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ডা.এম ইকবাল আর্সলান এবং মহাসচিব অধ্যাপক ডা.এম এ আজিজের উপস্থিত থাকার কথা থাকলেও তারা কেউই উপস্থিত ছিলেননা। তবে মুঠোফোনের মাধ্যমে ইফতার মাহফিলে বক্তব্য রাখেনস্বাচিপ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ডা.এম ইকবাল আর্সলান।

তিনি বলেন, স্বাচিপের আজকের অনুষ্ঠান যারা আয়োজন করেছেন তারা কেন্দ্র অনুমোদিত নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখা। আমি শামীম ওসমানকে অনুরোধ করবো নারায়ণগঞ্জের নেতা হিসেবে স্বাচিপের নারায়ণগঞ্জ জেলার যারা আছেন তাদের অভিভাবকের দায়িত্ব পালন করবেন। আমরা জানতে পেরেছি কিছু বিপথগামী নারায়ণগঞ্জে অতীতে যাদের স্বাচিপের সাথে কোন সংযোগ ছিলোনা তারা কারও প্ররোচণায় নারায়ণগঞ্জে স্বাচিপের ব্যানারে নিজেদের জেলা কমিটির নেতা ঘোষণা করে ইফতারের আয়োজন করেছে। যারা আয়োজন করেছেন তাদেরকে ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করার জন্য আহবান করছি। নতুন যে কমিটি দেয়া হয়েছে আপনারা এগিয়ে যান, কেন্দ্রীয় কমিটি আপনাদের সাথে আছে।  

 

গত৩০ এপ্রিল ঘোষণা দেয়া স্বাচিপ নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটির সভাপতি ডা. চৌধুরী মো.ইকবাল বাহারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাচিপ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ডা.আবু জাফর চৌধুরী বীরু, ডা.অনুপ কুমার রায়, দপ্তর সম্পাদক ডা.মাহবুবুর রহমান কচি, নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি খালেদ হায়দার খান কাজল, জেলা সিভিল সার্জন ডা.ইমতিয়াজ, খানপুর ৩০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক আবু জাহের, মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক শাহ নিজাম, মহানগর যুবলীগের সভাপতি শাহদাত হোসেন সাজনু, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাফায়েত আলম সানি, স্বাচিপ নারায়ণগঞ্জ জেলা সাধারণ সম্পাদক ডা.দেবাশীষ সাহা, ডা.তমাল, ডা.শেখ ফরহাদ, ডা.শামসুজ্জোহা, ডা.সারাফাত, ডা.আনীশ সরকার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।  

 

প্রসঙ্গত, বুধবার (২৯ মে) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাব ভবনের সিননামুন রেস্টুরেন্টে স্বাধীনতা চিকিৎসা পরিষদ (স্বাচিপ) নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি ডা.আতিকুজ্জামান সোহেলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী, এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে স্বাচিপের কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি মো.জামাল উদ্দিন চৌধুরী, যুগ্ম মহাসচিব অধ্যাপক ডা.উত্তম কুমার বড়–য়া, ডা.পুরভী দেবনাথ, ডা.মাহবুবুর রহমান বাবু, ডা.হাফিজুর রহমান, ডা.রাকিবুল ইসলাম, ডা.সালেহ মো.আতিক, ডা.নিজাম আলী উপস্থিত ছিলেন। জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাই ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন অনুষ্ঠানে অনুপুস্থিত থাকলেও অনুষ্ঠানে জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক জিএম আরমান, সাংগঠনিক সম্পাদক জিএম আরাফাত, কাউন্সিলর অসিত বরণ বিশ্বাসসহ স্বাচিপ নারায়ণগঞ্জ জেলার নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। 
 

এই বিভাগের আরো খবর