শুক্রবার   ২৪ মে ২০১৯   জ্যৈষ্ঠ ১০ ১৪২৬   ১৯ রমজান ১৪৪০

আদালতে এডিএম’র কক্ষে এপিপি জাসমিন লাঞ্ছিত

প্রকাশিত: ১৩ মার্চ ২০১৯  

স্টাফ রিপোর্টার ( যুগের চিন্তা ২৪) : নারায়ণগঞ্জ আদালতের সহকারি সরকারি কৌশুলী (এপিপি) এডভোকেট জাসমিন আহমেদ তাঁর স্বামী পুলিশ কর্মকর্তা আবু নকীব দ্বারা লাঞ্ছিত হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে । বুধবার (১৩ মার্চ) দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) যুথিকা সরকারের কার্যালয়ে ঘটনাটি ঘটে।


অ্যাডভোকেট জেসমিন আহমেদ জানান, বুধবার দুপুরে আমি একটি মামলার বিষয়ে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট যুথিকা সরকারের কার্যালয়ে যাই । আমি যখন দরজা দিয়ে ভিতরে প্রবেশ করে দেখি আমার স্বামী পুলিশ কর্মকর্তা আবু নকিব চেয়ার বসে আছে । আমি তাকে দেখে হতবাক হয়ে পড়ি।


 এসময় আমার স্বামী যার বিরুদ্ধে আমি যৌতুক মামলা দায়ের করেছি সে আমাকে কক্ষের ভিতরে একা পেয়ে এলোপাথাড়ি চড়, থাপ্পর, কিলঘুষি মারে এবং আমার জামা-কাপড় ছিড়ে ফেলে । এসময় আমি চিৎকার করলে সে দৌড়ে ওই রুম থেকে পালিয়ে যায় ।


জাসমিন বলেন, ঐ সময়ে জেলা ম্যাজিস্ট্রেট তার কক্ষে ছিলেন না। আমি এই বিয়ষটি মৌখিকভাবে তাকে জানিয়েছি এবং কি আমি বিষয়টি  জেলা প্রশাসককেও জানাবো ।  আমি একজন আইনজীবি, সরকারি এপিপি, আমার সাথে এমন একটা ন্যাক্কারজনক ঘটনা তাও আবার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের কক্ষে, তা খুবই দুঃখজনক । আমি এর বিচার দাবি করছি ।


প্রসঙ্গত, স্বামী নকিব ৫০ লাখ টাকা যৌতুকের দাবি করে নির্যাতন করেছে এমন অভিযোগ উল্লেখ করে  গত ৪ মার্চ সকালে নারায়ণগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতে মামলা দায়ের করেন এপিপি জাসমিন। মামলায় তাঁর স্বামী নকিব ছাড়াও ভাই মো.আবু নাসের নিপুন (৩২), শ্বাশুড়ি জুবরিয়া বেগম (৬০), অপর ভাই আবু নোমান সজল (৫০), এছাড়াও শিরিন আক্তার হিরা (৪৫)কে আসামী করেন জাসমীন। তাঁর স্বামী আবু নকীব খুলনা জেলার খালিসপুর থানার ৩৪ নং বিবি রোড এলাকার বাসিন্দা। মামলাটি আমলে নিয়া দ্রুত তদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতের বিচারক নির্দেশ দেন।

এই বিভাগের আরো খবর